ⓘ Free online encyclopedia. Did you know?




                                               

কামান (অস্ত্র)

কামান এক প্রকারের আগ্নেয়াস্ত্র। লোহা বা অন্য ধাতুর দ্বারা নির্মিত নলের মধ্যে গোলা এবং বারুদ ভরে তাতে বিস্ফোরণ ঘটিয়ে কামান চালনা করা হয়, বিস্ফোরণের ফলে কামানের গোলাটি সজোরে নলের খোলা মুখ দিয়ে বেরিয়ে আসে। কামানের ব্যবহার ব্যাপকভাবে চালু হয় চী ...

                                               

কিরিচ

কিরিচ দুই দিকে ধার বিশিষ্ট ইন্দোনেশীয় ছোরা জাতীয় ধারালো অস্ত্র। এটি একটি কাঠের খাপের ভিতরে থাকে এবং খাপটি বিষাক্ত থাকে। কিরিচ এর ভিন্নধর্মী ঢেউ তোলা ফলার জন্য বিখ্যাত, তবে অনেকগুলি কিরিচের সোজা ফলাও রয়েছে। সমুদ্রতীরবর্তী দক্ষিণপূর্ব এশিয়া তথা ...

                                               

ক্ষেপণাস্ত্র

আধুনিক সমরাস্ত্রে ক্ষেপণাস্ত্র গুরুত্বপুর্ণ ভূমিকা পালন করে। ক্ষেপণাস্ত্র হচ্ছে স্ব-প্রণোদিত সিস্টেম। ক্ষেপণাস্ত্র চারটি অংশ নিয়ে গঠিত: টার্গেটিং অথবা গাইডেন্স, ফ্লাইট সিস্টেম, ইঞ্জিন এবং ওআর হেড। ক্ষেত্রবিশেষে নানারকম কাজের জন্য বিশেষভাবে তৈরিক ...

                                               

গুলি

গুলি একটি আগ্নেয়াস্ত্র বা এয়ার গান‌ দ্বারা চালিত হয়। গুলিতে সাধারণত বিস্ফোরক থাকে না, কিন্তু উদ্দীষ্ট লক্ষ্যে গেঁথে অনেক ক্ষতি করতে পারে। বুলেট সাধারণত ৫ ধরনের হয়ে থাকে ১। blank বুলেট ২। ball বুলেট ৩। tracer/ spotter বুলেট ৪। incendiary বুলেট ...

                                               

গোলা

গোলা হচ্ছে ভেদ করে চলা দাহ্য এবং নিক্ষিপ্ত, অথবা বিস্তৃত রুপে আখ্যায়িত হয় যা কিছু যুদ্ধে ব্যবহৃত যেমন বোমা, মিসাইল, ওয়ারহেড, ভুমিতে বসানো মাইন, জলজ মাইন, এবং মানুষ হত্যাকার্যে বিশেষ মাইন। ফ্রেঞ্চ শব্দ la munition হতে এই নামটি নেয়া হয়েছে যার ...

                                               

ছুরি

চাকু বা ছুরি বা ছোরা সাধারণত কোনকিছু কাটার কাজে ব্যবহার করা হয়। হাতলযুক্ত অথবা হাতলবিহীন এই যন্ত্রের অগ্রভাগ কাটার সুবিধার্থে তীক্ষ্ণ রাখা হয়। চাকু এবং চাকুসদৃশ বস্তুগুলো প্রায় ২.৫ মিলিয়ন বছর পূর্ব হতে ব্যবহার হয়ে আসছে যার প্রমাণ ওল্ডয়ান হা ...

                                               

তরবারি

তরবারি হল একটি লম্বা ধারালো অস্ত্র যা কাটাকাটি বা আঘাত হানতে ব‍্যবহৃত হয়ে থাকে। এর প্রকৃত অর্থ ঐতিহাসিক কাল ও ভৌগলিক অঞ্চল ভেদে তাররতম‍্য ঘটে থাকে। তরবারি একটি লম্বা ধাতব ফলকের সঙ্গে হাতল যোগ করে গঠিত হয়। ধাতব ফলকটি সোজা ও বাঁকানো উভয় প্রকারের ...

                                               

পিপার স্প্রে

পিপার স্প্রে যা ওসি স্প্রে, ওসি গ্যাস এবং ক্যাপসিয়াম স্প্রে নামেও পরিচিত। ইহা একটি রাসায়নিক যৌগ যা চোখের প্রদাহ ঘটায় ফলশ্রুতিতে অশ্রু, ব্যথা এমনকি সাময়িক অন্ধত্ব ঘটতে পারে। নর্থ ক্যারোলাইনা মেডিকেল জার্নালে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ...

                                               

বাঘনখ

বাঘনখ বা ব্যাঘ্র নখর হলো ভারতীয় উপমহাদেশে উদ্ভুত একটি করতালু আকৃৃতির অস্ত্র৷ অস্ত্রটি এমনভাবেই তৈরী যেন তা ধারকের আঙুলের গাঁট বা অঙ্গুলিপর্ব ভালোভাবে এঁটে থাকতে পারে এবং সহজেই তা তালুর নিচে লুকিয়ে রাখা যায়৷ এটিতে পাঞ্জাদস্তানাতে আটকানো চার থেক ...

                                               

ব্লেড

ব্লেড হল কোনো যন্ত্র, অস্ত্র বা মেশিনের একটি অংশ যার একটি পাশকে এমনভাবে তৈরি করা হয় যাতে তা দ্বারা বিভিন্ন জিনিস বা তলকে কাটা, কুচি করা, ফুটো করা অথবা আচড় দেয়া যায়। ব্লেড পাথরের টুকরো বা ফলক, ধাতু, চিনামাটিসহ বিভিন্ন পদার্থ দ্বারা তৈরি হতে পা ...

                                               

মলটভ ককটেইল

মলটভ ককটেইল যা পেট্রল বোমা, আগ্নেয় বোমা, গরীবের গ্রেনেড বা শুধু মলটভ নামেও পরিচিত। এ জাতীয় বোমা বিভিন্ন ধরনের কাচের বোতল ও তরল দাহ্য পদার্থ ব্যবহার করে তৈরি করা হয়। সহজ প্রস্তুত প্রণালী ও তাৎক্ষনিক ভাবে তৈরি করা যায় বিধায় বিক্ষোভকারী এবং অপে ...

                                               

মাউসার ৯৮

মাউসার ৯৮ হল একটি জার্মান বোল্ট অ্যাকশন রাইফেল। যাতে মাউসার ৫-রাউন্ডের ইন্টার্নাল ক্লিপ ম্যাগাজিন থেকে গুলি চালানোর মতো করে তৈরি করা হয়েছিল । এর ডিজাইন করেন পাউল মাউসার ১৮৯৫ সালে । এটি জার্মানি কর্তৃক উদ্ভাবিত যেকোনো রাইফেল এর মধ্যে সর্বাধিক উৎপ ...

                                               

স্কাড

স্কাড হচ্ছে সোভিয়েত ইউনিয়নের একটি ক্ষেপণাস্ত্র সিরিজ; এটি স্নায়ুযুদ্ধের সময় নির্মাণ করা হয় এবং বিভিন্ন দেশে ব্যাপকভাবে রপ্তানি করা হয়। শব্দটির উৎপত্তি ন্যাটো রিপোর্টিং নাম এসএস-১ স্কাড থেকে যা পশ্চিমা গোয়েন্দা সংস্থাগুলো ক্ষেপণাস্ত্রটির সা ...

                                               

জোসেফ লিস্টার

জোসেফ লিস্টার, ১ম ব্যারন লিস্টার, ওএম, পিসি, পিআরএস, ১৮৮৩ থেকে ১৮৯৭ সালের মধ্যে স্যার জোসেফ লিস্টর নামে পরিচিত, বিটি। তিনি ছিলেন একজন ব্রিটিশ শল্যচিকিৎসক এবং বীজাণু বারক শল্যচিকিৎসার একজন প্রবর্তক। লিস্টার, গ্লাসগো রয়্যাল ইনফার্মারিতে কাজ করার স ...

                                               

রবার্ট রবিনসন

রবিনসন ম্যানচেস্টার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯০৬ সালে বিএসসি এবং ১৯১০ সালে ডিএসসি ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি ১৯১২ সালে সিডনি বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশুদ্ধ ও ফলিত জৈব রসায়নের প্রথম পূর্ণ অধ্যাপক নিযুক্ত হন। তিনি ১৯১৫ সালে ব্রিতেনে ফিরে লিভারপুল বিশ্ববিদ্যালয়ে ...

                                               

হান্স ক্রিশ্চিয়ান ওরস্টেড

হান্স ক্রিশ্চিয়ান ওরস্টেড ছিলেন ড্যানিশ পদার্থবিজ্ঞানী এবং রসায়নবিদ যিনি আবিষ্কার করেছিলেন যে, তড়িৎ প্রবাহ চৌম্বক ক্ষেত্র তৈরি করে যা তড়িচ্চুম্বকত্বের একটি গুরুত্বপূর্ণ দিক। তিনি এখনো ওরস্টেডের লয়ের জন্য পরিচিত। তিনি উত্তর-কান্টিয় দর্শনের ন ...

                                               

আর্চিবাল্ড ভি. হিল

আর্চিবাল্ড ভিভিয়ান হিল একজন ইংরেজ শারীরতত্ত্ববিদ। তিনি ১৯২২ সালে চিকিৎসাবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন।

                                               

আর্নেস্ট রাদারফোর্ড

আর্নেস্ট রাদারফোর্ড, নেলসনের প্রথম ব্যারন রাদারফোর্ড, ওএম, পিসি, এফআর এস, একজন নিউজিল্যান্ডীয় নিউক্লীয় পদার্থবিজ্ঞানী। তিনি নিউক্লীয় পদার্থবিজ্ঞানের "জনক" হিসেবে খ্যাত। তিনি তার বিখ্যাত স্বর্ণপাত পরীক্ষায় প্রমাণুর নিউক্লিয়াস বা কেন্দ্রীণ থেক ...

                                               

আলবার্ট আব্রাহাম মাইকেলসন

আলবার্ট আব্রাহাম মাইকেলসন, পোল্যান্ডে জন্মগ্রহণকারী মার্কিন পদার্থবিদ। তিনি আলোর গতিবেগ পরিমাপের জন্য বিশেষ করে মিকেলসন-মোরলে পরিক্ষণের জন্য পরিচিত। তিনি ১৯০৭ সালে পদার্থ বিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন। তিনিই প্রথম আমেরিকান যিনি বিজ্ঞানে নোবেল ...

                                               

আলবার্ট ভন কলিকার

আলবার্ট কলিকারের জন্ম সুইজারল্যান্ডের জুরিখে। তাঁর প্রাথমিক পড়াশোনা জুরিখে সম্পন্ন হয় এবং তিনি ১৮৩৬ সালে সেখানকার বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হন। তবে দুই বছর পর তিনি বন বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং পরবর্তীতে বার্লিনে চলে আসেন এবং বিশিষ্ট ফিজিওলজিস্ট ইয়োহানেস ...

                                               

আলেক্সান্ডার টড

টড গ্লাসগোর কাছে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি গ্লাসগো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯২৮ সালে বিএসসি ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৩৩ সালে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ১৯৩৮ সালে ম্যানচেস্টার বিশ্ববিদ্যালয় রসায়নের অধ্যাপক নিযুক্ত হন। ১৯৪৪ ...

                                               

আলেসান্দ্রো ভোল্টা

আলেসান্দ্রো গিউসিপ্পে এন্টনিও আনাস্তাসিও ভোল্টা ইতালীয় পদার্থবিজ্ঞানী হিসেবে বিদ্যুৎ শক্তি উদ্ভাবনে পথিকৃৎ ছিলেন। অষ্টাদশ শতকে প্রথম ব্যাটারী বা বিদ্যুৎ কোষ আবিষ্কারের মাধ্যমে তিনি চীরস্মরণীয় হয়ে রয়েছেন। তিনি কোমোয় জন্মগ্রহণ করেন। সেখানকার এ ...

                                               

ইভান পাভলভ

ইভান পেত্রোভিচ পাভলভ একজন রুশ চিকিৎসক যিনি বস্তুবাদী গবেষণার জন্য প্রসিদ্ধ। তার শৈশব দিন থেকে পাভলভ অস্বাভাবিক শক্তির বুদ্ধিগত প্রতিভা প্রদর্শন করে যার নাম দেন "গবেষণার জন্য প্রেরণা"। তার সবচেয়ে বড় অবদান "সাপেক্ষ প্রতিবর্ত" ব্যাখ্যাকারী গবেষণাস ...

                                               

ইলিয়া মিয়েচ্‌নিকফ

ইলিয়া ইলিচ মিয়েচ্‌নিকফ একজন রুশ প্রাণীবিজ্ঞানী যিনি মূলত অনাক্রম্যবিজ্ঞান ক্ষেত্রে অগ্রবর্তী গবেষণার জন্য পরিচিত। বিশেষ করে তাঁকে ১৮৮২ সালে ভক্ষককোষ বৃহৎ ভক্ষককোষ আবিষ্কারের জন্য স্বীকৃতি দেওয়া হয়। তাঁর এই আবিষ্কারের পরে বের হয় যে ভক্ষককোষগু ...

                                               

উইলিয়াম লরেন্স ব্র্যাগ

স্যার উইলিয়াম লরেন্স ব্র্যাগ সিএইচ, এফআরএস অস্ট্রেলীয় বংশোদ্ভুত ব্রিটিশ পদার্থবিজ্ঞানী যিনি ১৯১৫ সালে পিতা উইলিয়াম হেনরি ব্র্যাগ-এর সাথে যৌথভাবে পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন। তিনি এযাবৎকালের মধ্যে সবচেয়ে কম বয়সে নোবেল পুরস্কারপ্রাপ ...

                                               

উইলিয়াম হাইড ওলাস্টোন

উইলিয়াম হাইড ওলাস্টোন একজন ইংরেজ রসায়নবিদ এবং পদার্থবিদ। তিনি রাসায়নিক মৌল প্যালাডিয়াম এবং রোডিয়াম আবিষ্কার করার জন্য বিখ্যাত। তিনি প্ল্যাটিনাম আকরিক থেকে নমনীয় ধাতুপিন্ড প্রক্রিয়াকরণের একটি উপায়ও উদ্ভাবন করেছিলেন।

                                               

উইলিয়াম হার্শেল

স্যার ফ্রেডরিক উইলিয়াম হার্শেল একজন জার্মান বংশদ্ভুত ইংরেজ জ্যোতির্বিজ্ঞানী এবং সুরকার। ইউরেনাস গ্রহ আবিকারের মধ্যদিয়ে তিনি পরিচিতি এবং বিখ্যাত হন। এছাড়াও অবলোহিত বিকিরণ সহ আরও বিভিন্ন জ্যোতির্বিদ্যা সম্পর্কিত আবিষ্কার রয়েছে। জোতির্বিজ্ঞানী ফ ...

                                               

উইলিয়াম হেনরি ব্র্যাগ

স্যার উইলিয়াম হেনরি ব্র্যাগ ওএম, এমএ, পিএইচডি একজন বিখ্যাত ইংরেজ পদার্থবিজ্ঞানী এবং রসায়নবিদ। তিনি ছেলের সাথে যৌথভাবে ১৯১৫ সালে পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন। তাদের গবেষণার বিষয় ছিল এক্স রশ্মির সাহায্যে কেলাস গঠন বিশ্লেষণ। তিনি কিং উই ...

                                               

গেয়র্গ ডে হেভেসি

গেয়র্গ ডে হেভেসি ১ আগস্ট ১৮৮৫ সালে জন্মগ্রহণ করেন | তিনি একজন হাঙ্গেরিয়ান রেডিও-কেমিস্ট | তিনি তেজস্ক্রিয় ট্রেসার রাসায়নিক প্রক্রিয়াকরণ যেমন প্রাণীর বিপাকীয় বিষয়গুলি অধ্যয়ন করার ক্ষেত্রে তার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকার পালন করেন | তিনি কাজের স্ব ...

                                               

চার্লস টমসন রিস উইলসন

চার্লস টমসন রিস উইলসন ছিলেন প্রখ্যাত স্কটীয় পদার্থবিজ্ঞানী। তিনি বাষ্পকে ঘনীভূত করার মাধ্যমে তড়িতাহিত বস্তুকণার গতিপথকে দৃশ্যমান করার পদ্ধতি আবিষ্কারের কারণে ১৯২৭ সালে বিজ্ঞানী আর্থার হোলি কম্পটন-এর সাথে যৌথভাবে পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার লা ...

                                               

চার্লস হুইটস্টোন

চার্লস হুইটস্টোন এফআরএস/এফআরএসই/ডিসিএল/এলএলডি ছিলেন একজন ইংরেজ বিজ্ঞানী। তিনি ছিলেন ভিক্টোরিয়ান যুগ এর বিরাট সাফল্য অর্জনকারী বিজ্ঞানী। বিজ্ঞানের বহু বিষয়ে আবিষ্কার রয়েছে তাঁর। যেমন ইংলিশ কনসার্টিনা, স্টিরিওস্কোপ এবং প্লেফায়ার সাইফার । তবে হু ...

                                               

জেমস চ্যাডউইক

স্যার জেমস চ্যাডউইক, সিএইচ, এফআরএস ছিলেন একজন ব্রিটিশ পদার্থবিজ্ঞানী। তিনি ১৯৩২ সালে নিউট্রন আবিষ্কার করেন এবং এই অবদানের জন্য ১৯৩৫ সালে পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কারে ভূষিত হন। ১৯৪১ সালে তিনি মাউড প্রতিবেদনের চূড়ান্ত পাণ্ডুলিপি লিখেন, যা মার্কি ...

                                               

জন উইলিয়াম স্ট্রাট, ৩য় ব্যারন রেলি

জন উইলিয়াম স্ট্রাট, ৩য় ব্যারন রেলি ইংরেজ পদার্থবিজ্ঞানী। উইলিয়াম র‍্যামজি এবং উইলিয়াম স্ট্রাট যৌথভাবে আর্গন নামক মৌলিক পদার্থটি আবিষ্কার করেন। এই আবিষ্কারের জন্য তিনি ১৯০৪ সালে পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন। এছাড়াও তার গুরুত্বপূর্ণ ...

                                               

জন ওয়ারকাপ কর্নফোর্থ

কর্নফোর্থ ১৯১৭ সালের ৭ সেপ্তেম্বর সিডনিতে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি সিডনি বিশ্ববিদ্যালয় এর স্কুল অব কেমিস্ট্রি থেকে ১৯৩৭ সালে জৈব রসায়নে সম্মানসহ প্রথম শ্রেণী এবং ইউনিভার্সিটি মেডেল অর্জন করেন।

                                               

জর্জ পোর্টার

পোর্টার ১৯২০ সালের ৬ ডিসেম্বর দক্ষিণ ইয়র্কশায়ারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি লীডস বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রসায়নে ডিগ্রি অর্জন করেন। তিনি ১৯৮৪ থেকে ১৯৯৫ সাল পর্যন্ত ইউনিভার্সিটি অব লিচেস্তাএর চ্যান্সেলরের দায়িত্ব পালন করেন। তিনি ১৯৮৫ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ ...

                                               

জাঁ বার্নার্ড লিওঁ ফুকো

জাঁ বার্নার্ড লিওঁ ফুকো একজন ফরাসী পদার্থবিদ ছিলেন। তিনি পৃথিবীর আহ্নিক গতির প্রদর্শনের জন্য ফুকোর দোলক উদ্ভাবন করেন।

                                               

জে জে টমসন

স্যার জোসেফ জন থমসন, ওএম, এফআর, সচরাচর জে. জে. থমসন নামে পরিচিত, একজন ব্রিটিশ বিজ্ঞানী। ইলেকট্রন, আইসোটোপ এবং ভর বর্ণালীবীক্ষণ যন্ত্রের আবিষ্কারের জন্য তিনি বিখ্যাত। তিনি ১৯০৬ সালে তার এই আবিষ্কারগুলোর জন্য পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন। ...

                                               

জেমস ওয়াটসন

জেমস ডি. ওয়াটসন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী একজন মার্কিন আণবিক জীববিজ্ঞানী। ফ্রান্সিস ক্রিক এর সাথে তিনি ডি. এন. এ. এর গঠন সংক্রান্ত তত্ত্ব প্রদান করার জন্য বিখ্যাত হয়ে আছেন। তার রচিত গ্রন্থগুলির মধ্যে দ্বি-হেলিক্স: ডি. এন. এ. -এর গঠন আবিষ্কারের ভেতর ...

                                               

জেমস কুক

ক্যাপটেন জেমস কুক ছিলেন একজন ইংরেজ নাবিক। ইউরোপীয় অভিযাত্রীদের মধ্যে তিনি প্রথম অস্ট্রেলিয়া মহাদেশের পূর্ব উপকূলে পদার্পণ করেন। এছাড়া তিনি হাওয়াই দ্বীপপুঞ্জেও পদার্পণ করেন।

                                               

জেমস প্রেসকট জুল

জেমস প্রেসকট জুল একজন ইংরেজ পদার্থবিজ্ঞানী। জুল তাপের ধর্ম পর্যবেক্ষণ করেন এবং যান্ত্রিক কাজের সাথে এর সম্পর্ক আবিষ্কার করেন। শক্তির এসআই একক জুল তার নামেই নামকরণ করা হয়েছে। তাপমাত্রার পরম স্কেল প্রতিষ্ঠার জন্য তিনি লর্ড কেলভিন এর সাথে কাজ করেন।

                                               

ডেরেক হ্যারল্ড রিচার্ড বার্টন

বার্টন ইম্পেরিয়াল কলেজ লন্ডন থেকে ১৯৪০ সালে গ্র্যাজুয়েট হন এবং ১৯৪২ সালে জৈব রসায়নে পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি এই বিশ্ববিদ্যালয়ে সহকারী প্রভাষক হিসেবে নিযুক্ত হন। তিনি ১৯৪৯ ও ১৯৫০ সালে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় এ ভিজিটিং প্রভাষক হিসেবে কাজ ...

                                               

থিওডোর শোয়ান

থিওডোর শোয়ান ছিলেন একজন জার্মান চিকিৎসক ও শারীরতত্ত্ববিদ। প্রাণীদের কোষ তত্ত্বের সম্প্রসারণকে জীববিজ্ঞানে তার সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য অবদান হিসেবে বিবেচনা করা হয়। অন্যান্য অবদানের মধ্যে রয়েছে পেরিফেরাল স্নায়ুতন্ত্রে শোয়ান কোষ আবিষ্কার, পেপসিন আব ...

                                               

নেভিল ফ্রান্সিস মট

স্যার নেভিল ফ্রান্সিস মট ছিলেন বিখ্যাত ব্রিটিশ পদার্থবিজ্ঞানী। তিনি ১৯৭৭ সালে মার্কিন বিজ্ঞানী জন হ্যাসব্রাউক ভ্যান ভ্লেক এবং ফিলিপ ওয়ারেন এন্ডারসনের সাথে যৌথভাবে পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন।

                                               

পিটার ডি. মিচেল

১৯২০ সালের ২৯ সেপ্টেম্বর মিচেল সারে কাউন্টির মিচাম এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবার নাম ক্রিস্টোফার গিবস মিচেল এবং মার নাম কেট বিয়েট্রিস ডরোথি ট্যাপলিন। ক্রিস্টোফার পেশায় একজন সরকারি কর্মকর্তা ছিলেন। মিচেলের মামা স্যার গডফ্রে ওয়ে মিচেল বিখ্যা ...

                                               

মাইকেল ফ্যারাডে

মাইকেল ফ্যারাডে একজন ইংরেজ রসায়নবিদ এবং পদার্থবিজ্ঞানী ছিলেন। তড়িচ্চুম্বক তত্ত্ব এবং তড়িৎ রসায়নের ক্ষেত্রে তার গুরুত্বপূর্ণ অবদান রয়েছে। তিনি প্রতিষ্ঠা করেন যে, চুম্বকত্ব আলোকে প্রভাবিত করে এবং এই দুই প্রত্যক্ষ ঘটনার মধ্যে একটি অন্তর্নিহিত স ...

                                               

ফ্রেডরিখ ভোলার

ফ্রেডরিখ ভোলার ঊনবিংশ শতাব্দীর একজন জার্মান রসায়নবিদ যিনি ইউরিয়া সংশ্লেষণের জন্য সর্বাধিক পরিচিত। এছাড়া বেশ কিছু মৌলিক পদার্থকে পৃথকীকরণের জন্যেও তিনি খ্যাতি লাভ করেন। ফ্রেডরিখ ভোলারকে" আধুনিক জৈব রসায়নের জনক” হিসেবে অভিহিত করা হয়।

                                               

জনস জ্যাকব বার্জেলিয়াস

ব্যারন জনস জ্যাকব বার্জেলিয়াস (সুয়েডিয়: ; একজন সুয়েডীয় রসায়নবিদ ছিলেন। বার্জেলিয়াস, রবার্ট বয়েল, জন ডাল্টন এবং অ্যান্টনি ল্যাভয়সিয়েকে আধুনিক রসায়নের প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে বিবেচনা করা হয়।বার্জেলিয়াস ১৮০৮ সালে রাজকীয় সুয়েডীয় বিজ্ঞান এক ...

                                               

বেঞ্জামিন ফ্রাঙ্কলিন

বেঞ্জামিন ফ্রাঙ্কলিন, আমেরিকার প্রতিষ্ঠাতা জনকদের মধ্যে একজন। তিনি বিবিধ বিষয়ে দক্ষ ছিলেন। ফ্রাঙ্কলিন একাধারে একজন লেখক, চিত্রশিল্পী, রাজনীতিবিদ, রাজনীতিক, বিজ্ঞানী, সঙ্গীতজ্ঞ, উদ্ভাবক, রাষ্ট্রপ্রধান, কৌতুকবিদ, গণআন্দোলনকারী এবং কূটনীতিক। বিজ্ঞা ...

                                               

নিলস বোর

নেল্‌স হেনরিক ডেভিড বোর হলেন পরমাণু গঠনের আধুনিক তত্ত্বের অন্যতম প্রবক্তা ও বিখ্যাত পদার্থবিদ। এই ডেনিশ পদার্থবিজ্ঞানী ১৯২২ সালে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন। বোরের পরমাণু মডেল রসায়নের ইতিহাসে আজও বিখ্যাত হয়ে আছে। তিনি মূলত অবদান রাখেন পদার্থের আণবি ...

                                               

মাক্স প্লাংক

কার্ল আর্নস্ট লুডভিগ মার্কস প্ল্যানক জার্মান তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞানী ছিলেন, যার শক্তির কোয়ান্টাম আবিষ্কার তাকে 1918 সালে পদার্থবিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার জিতিয়ে ছিল। প্লাংক তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞানে অনেক অবদান রেখেছিলেন, কিন্তু পদার্থবিজ্ঞানী হিসা ...